২০২০ সালে সবচেয়ে বেশি চিপসেট বিক্রির তালিকায় মিডিয়াটেক

স্মার্টফোন বিশ্বে অন্যতম দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী চিপসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক কোয়ালকম এবং তাইওয়ান ভিত্তিক মিডিয়াটেক। পার্সোনাল কম্পিউটার জগতের ইন্টেল বনাম এ‌এমডি দ্বৈরথের সাথে অনেকটাই তুলনা করা যায় কোয়ালকম বনাম মিডিয়াটেক’কে।

যেখানে ইন্টেলের জগতে এ‌এমডি এর মতই কোয়ালকমের আধিপত্যে সময়ের সাথে সাথে ধীরে ধীরে মিডিয়াটেক হানা দিতে শুরু করেছে। বিশ্লেষক সংস্থা Omdia সম্প্রতি তাদের রিপোর্টে এমনই তথ্য প্রকাশ করেছে।

রিপোর্ট অনুসারে, ২০২০ সালে ৩৫১.৮ মিলিয়ন ইউনিট চিপসেট সাপ্লাই করেছে মিডিয়াটেক, যেখানে ২০১৯ সালে তারা সাপ্লাই করেছিলো ২৩৮ মিলিয়ন ইউনিট। এর ফলে মিডিয়াটেকের মার্কেট শেয়ারের পরিমাণ ১৭.২ শতাংশ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭.২ শতাংশে। আর এর মাধ্যমেই প্রথমবারের মতো সর্বাধিক চিপসেট বিক্রির দিক থেকে কোয়ালকম’কে টপকে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় সেমিকন্ডাক্টর কোম্পানির তকমা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে মিডিয়াটেক।

প্রসঙ্গক্রমে, মিডিয়াটেকের হঠাৎ এই উত্তরণের পিছনে চীনা স্মার্টফোন ব্র্যান্ড শাওমি, ওপ্পো এবং রিয়ালমি’র বিশেষ অবদান রয়েছে। ২০১৯ সালে মিডিয়াটেকের কাছ থেকে যেখানে শাওমি ১৯.৭ মিলিয়ন ইউনিট চিপসেট কিনেছিলো,

সেখানে ২০২০ সালে এসে তারা প্রায় ৬৩.৭ মিলিয়ন ইউনিট চিপসেট কিনেছে। শাওমির পরেই যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ওপ্পো এবং রিয়েলমি। ২০১৯ সালের ৪৬.৩ মিলিয়ন ইউনিট থেকে বেড়ে ২০২০ এ ৫৫.৩ মিলিয়ন ইউনিট এ এসে দাঁড়ায় এই জুটির চিপসেট সাপ্লাই।

এসব চীনা কোম্পানির পাশাপাশি পাশাপাশি স্যামসাংও ২০২০ সালে ৪৩.৩ মিলিয়ন ইউনিট চিপসেট কিনেছে মিডিয়াটেকের কাছ থেকে। উল্লেখ্য, মোট সংখ্যার হিসেবে মিডিয়াটেক এখন শীর্ষস্থানে থাকলেও শুধুমাত্র ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট এর হিসেবে এখনো কোয়ালকমকে সরাতে পারেনি তারা।

মিডিয়াটেক তাদের ডাইমেনসিটি সিরিজে নিত্যনতুন চিপসেট যুক্ত করলেও কোয়ালকম সম্প্রতি স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ এবং স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ অ্যানাউন্স করে মিডিয়াটেককে আরও বেকায়দায় ফেলেছে। ধরে নেয়া যায়, ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট এর কাতারে প্রথম হতে মিডিয়াটেক’কে এখনো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।